মহেশখালীতে ১৩টি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিসহ আটক ৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কক্সবাজারের মহেশখালী দ্বীপে ১৩টি আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল সংখ্যক গুলিসহ তিনজন অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব-৭ এর কক্সবাজার ক্যাম্পের সদস্যরা। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে দ্বীপের শাপলাপুর ইউনিয়ন থেকে আগ্নেয়াস্ত্রসহ এই তিন ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

র‍্যাব- ৭ এর কক্সবাজার ক্যাম্পের কম্পানি কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মহেশখালীর শাপলাপুর এলাকায় কিছু সংখ্যক অস্ত্র ব্যবসায়ী অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশে অবস্থান করছে। এই তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের একটি দল উক্ত এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে দ্বীপের হোয়ানক ফকিরখালী পাড়ার নুর আহম্মেদের ছেলে মো. হাবিবুর রহমান (৩২),  শাপলাপুর  বাড়িয়াছড়ির নুরুল আফছার এর ছেলে মো. নাসির উদ্দিন (৩০), কালারমারছড়া উত্তর নলাবিলার আজিজুল হকের ছেলে শহিদুল ইসলাম (২৪) কে হাতেনাতে আটক করে র‌্যাব। আটক ব্যক্তিরা সবাই মহেশখালী উপজেলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

পরবর্তীতে আটককৃতদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ও স্থানীয়দের উপস্থিতিতে এনামুল হকের বসতবাড়ির পূর্বদিকের দোচালা গোয়ালঘরের ভেতরে খড়কুটার মধ্যে তল্লাসি চালিয়ে ১৩টি ওয়ান শুটারগান, ০.১২ বোর শটগানের ২২টি গুলি, ৫.৫ মিমি/২২ এর ৪০৮টি গুলি এবং নগদ ২৩ হাজার টাকা ও ৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব কমান্ডার আরো জানান, অস্ত্র উদ্ধারের সময় আসামিদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে উক্ত অবৈধ অস্ত্র বিক্রয়ের উদ্দেশে মজুদ করার কথা স্বীকার করে। এসব অস্ত্রের ক্রেতারা সন্ত্রাসী, ডাকাতি, মাছের ঘের ও লবণ চাষীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়, ও বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন। এলাকার জনসাধারণের মনে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য এবং প্রভাব বিস্তারের লক্ষ্যে তারা সর্বদা অবৈধ অস্ত্র মজুদ রাখে।

র‍্যাবের অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, আটক আসামিদের বিরুদ্ধে র‍্যাব বাদি হয়ে মামলার প্রস্তুতি করছে।

আপনার মন্তব্য দিন

আপনার ই-মেইল এড্রেস প্রকাশ হবে না। Required fields are marked *